প্রেমিক ‘ফেসবুকে ব্লক’ করায় কিশোরীর আত্মহত্যা

বিনোদন

‘ফেসবুক-মেসেঞ্জারে ব্লক করে দেয়ায়’ গলায় ওড়না প্যাঁচিয়ে নাটোরের বাগাতিপাড়ার পাঁকা ইউনিয়নের মালিগাছা সাজিপাড়া গ্রামে এক কিশোরী আত্মহত্যা করেছেন। বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহত জাকিয়া সুলতানা সোনালী লোকমানপুর কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী ও মোহাম্মদ সুমনের মেয়ে।




এ ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে তার প্রেমিক একই কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র রোকন।

নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সোনালী ও রোকনের মধ্যে অনেকদিন ধরেই প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

তবে সোনালীকে সন্দেহ করত রোকন। এই নিয়ে মাঝে মধ্যে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য ও ঝগড়া হতো।

মঙ্গলবার রাতে এসব বিষয়ে রোকনের সঙ্গে ফেসবুক মেসেঞ্জারে বাকবিতণ্ডা হয় সোনালীর। একপর্যায়ে সোনালীকে চরিত্রহীন বলে অপবাদ দেয় রোকন।




জবাবে আত্মহত্যার হুমকি দেয় সোনালী। এ নিয়ে চ্যাট চলাকালীন মেসেঞ্জার ও ফেসবুক আইডিতে সোনালীকে ব্লক করে দেয় রোকন। সকালের সোনালীর লাশ উদ্ধারকালে মোবাইলফোন জব্দ করে পুলিশ। সেখানেই দু’জনের চ্যাট দেখতে পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে জানিয়ে নাটোর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল হাসনাত।

4 thoughts on “প্রেমিক ‘ফেসবুকে ব্লক’ করায় কিশোরীর আত্মহত্যা

  1. I also like Flash, however I am not a good designer to design a Flash, however I have computer software by witch a Flash is automatically created and no additional to hard working.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *